বিরাট কোহলিকে যার সাথে তুলনা করল অষ্ট্রেলিয় মিডিয়া 

https://www.bdnow24.com/category/খেলাধুলা/

অস্ট্রেলিয়া প্লেয়াররা যা বলার তো বলছেনই। সেই ইয়ান হিলি হোক বা মিশেল জনসন। বর্তমান ক্রিকেটার বা প্রাক্তন। সবাই কখনও না কখনও একহাত নিয়েছেম বিরাট কোহলিকে।

 এ বার সেই তালিকায় যুক্ত হল সেই দেশের মিডিয়াও। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে তুলনা করা হল ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে। যদিও এর যোগ্য জবাব দিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সুনীল গাভাস্কার। অস্ট্রেলিয়ার সংবাদ মাধ্যমকে তিনি দলের সাপোর্ট স্টাফ বললেন।

গাভাস্কার বলেন, ‘আমাদের অস্ট্রেলিয়া মিডিয়াকে এতটাও গুরুত্ব দেওয়ার কিছু হয়নি। ওরা যেটা লিখছে যা দেখে মনে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া দলের সাপোর্ট স্টাফরা বলছে। ফোকাসটা মাঠের বাইরের ঘটনা থেকে সরিয়ে খেলায় ফিরিয়ে আনা উচিত।’

রাঁচিতে তৃতীয় টেস্ট ড্র হওয়ার পর আবারও বিরাট কোহলিকে টার্গেট করেছে অস্ট্রেলিয়া মিডিয়া। একটি সংবাদপত্রে লেখা হয়েছে, বিরাট কোহলি ক্রমশ বিশ্ব ক্রিকেটের ডোনাল্ড ট্রাম্প হয়ে উঠছেন। ট্রাম্পের মতো সংবাদ মাধ্যমকে অভিযুক্ত করেছেন বিরাট। যেখানে লেখা হয়েছে, ‘বিরাট কোহলি বিশ্ব ক্রীড়ার ডোনাল্ড ট্রাম্প হয়ে উঠছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মতো, কোহলিও ঠিক করে নিয়েছেন সংবাদ মাধ্যমকে অভিযুক্ত করবেন নিজেকে ঢাকতে।’

চার ম্যাচের সিরিজে বিতর্কের শুরু বেঙ্গালুরু টেস্টের শেষ থেকে। যখন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ডিআরএস-এর জন্য ড্রেসিংরুমের সাহায্য চেয়েছিলেন। ম্যাচ শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে এই তথ্য ফাঁস করে দেন বিরাট কোহলি। যেখানে তিনি বলেন, এটাই প্রথম নয় এই ম্যাচে আগেও একই ঘটনা ঘটেছে। এটা নিয়ে দুই বোর্ডের সঙ্গে জড়িয়ে যায় আইসিসিও। যদিও আইসিসির তরফে কোনও কঠিন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি এই বিষয়ে। বরং পুরো ঘটনাকে হালকা করে দেওয়া হয়। যাতে বেশ কিছুটা বিরক্ত হলেও পরে অস্ট্রেলিয়া বোর্ডের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নেয় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

এর পর শুরু হয় বিরাটের চোট নিয়ে নানা বিতর্ক। ভারতীয় ফিজিওকে বিদ্রুপ করেন অস্ট্রেলিয়ার প্লেয়াররা। কোহলি বলেছিলেন, ‘‘ওরা হঠাৎ করেই প্যাট্রিকের নাম নিতে শুরু করে। আমি জানি না কেন। ও আমাদের ফিজিও। ওর কাজ আমার চিকিৎসা করা। আমি বুঝতে পারিনি। এর পিছনে কারনও খুঁজে পাইনি। আপনারা জানতে চাইবেন ওরা কেন ফিজিও নাম নিতে শুরু করেছিল।’​

যদিও স্মিথ জানিয়ে দেন তাঁরা ভারতের ফিজিওকে অসম্মান করেননি। স্মিথ বলেন, ‘এটা খুব হতাশাজনক। বিরাট যেটা বলছেন ঠিক তার বিপরীতটাই হয়েছে। আমার মনে হয় ও খুব ভাল কাজ করেছে যাতে বিরাট আবার মাঠে ফিরে এসেছে চোট কাটিয়ে। ও খুব ভাল ফিজিও।’

Be the first to comment on "বিরাট কোহলিকে যার সাথে তুলনা করল অষ্ট্রেলিয় মিডিয়া "

Leave a Reply