শাহিদ-হৃতিকের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতার চোরা স্রোত, কিন্তু কেন?

বি-টাউনের অভিনেতা অভিনেত্রীদের মধ্যে শত্রুতা‚ প্রতিযোগিতা লেগেই থাকে‚ সব সময়ই নিরপত্তাহীনতায় ভোগেন ওঁরা | তাই বলে বলিউডের দুই প্রতিষ্ঠিত নায়ক যে একে অপরকে নিয়ে এমন নিরপত্তাহীনতায় ভুগবেন কেউ কল্পনাও করতে পারে নি | আমরা বলছি শাহিদ কাপুর এবং হৃতিক রোশনের কথা |

শোনা যাচ্ছে ‘ কাবিল ‘ ছবির সাফল্যের পর বি-টাউনের অনেকেই মনে মনে বেশ হিংসা করছেন হৃতিককে | তাঁদের মধ্যে শাহিদ একজন | সম্প্রতি ওঁর অভিনীত ছবি ‘ রেঙ্গুন ‘ নিয়ে উনি বেশ আশাবাদী ছিলেন | কিন্তু সেই ছবি মুখ থুবড়ে পড়ে বক্স অফিসে | তাই হৃতিককে হিংসা করাটা স্বাভাবিক | কিন্তু তাই বলে শাহিদের মতো একজন অভিনতা এতটা নীরপত্তাহীনতায় ভুগবেন তা আশাই করা যায় না |

আমরা জানি অ্যাক্টররা বিভিন্ন ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট এজেন্সিকে তাঁদের কাজকর্ম দেখার জন্য নিযুক্ত করেন | গতমাসে হঠাৎ করেই হৃতিক ওঁর এজেন্সির সঙ্গে নিজের কন্ট্রাক্ট তুলে নেন | বহুদিন ধরে হৃতিক এক্সিড এজেন্সির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন | তাই ওঁর এই সিদ্ধান্তে সবাই বেশ অবাক হন | যাই হোক‚ হৃতিক সেই এজেন্সির সঙ্গে কন্ট্রাক্ট শেষ করে দেওয়ার পর যুক্ত হয়েছেন শাহিদের এজেন্সির সঙ্গে | এই এজেন্সি‚ যার নাম CAA Kwaan ‚ লস এঞ্জলেসে অবস্থিত |

এই এজেন্সি শুধু শাহিদের জন্য কাজ করেন না | ওঁরা ব্র্যাড পিট‚ দীপিকা পাড়ুকোন‚ টম ক্রুজ‚ ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো এবং রণবীর কাপুরের কাজকর্মও ম্যানেজ করে |

শাহিদের হঠাৎ করেই মনে হচ্ছে হৃত্তিক এজেন্সি পাল্টানোর পর উনি বেশি অ্যাটেনশন পাচ্ছেন | ফলে উনি নিজের কন্ট্রাক্ট শেষ করে দিলেন ওই এজেন্সির সঙ্গে |

একটি জনপ্রিয় দৈনিকে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী ওই এজেন্সির একজন শেয়ার হোল্ডার মধু মন্টেনা শাহিদের খুব কাছের বন্ধু | ওঁদের বন্ধুত্বের মধ্যে কোনো চিড় না ধরলেও শাহিদ ঠিক করেছেন সেই এজেন্সির সঙ্গে আর কাজ করবেন না |

শাহিদকে এরপর দেখা যাবে সঞ্জেয় লীলা বনশালি পরিচালিত

‘ পদ্মাবতী ‘ ছবিতে | অন্যদিকে হৃতিক রোশন নাকি কবীর খানের একটা ছবি সই করেছেন |

Be the first to comment on "শাহিদ-হৃতিকের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতার চোরা স্রোত, কিন্তু কেন?"

Leave a Reply