রাতবিরেতে ঘোর বিপাকে শুভশ্রী, মিলল না পুলিশের সাহায্যও

রাতবিরেতে ঘোর বিপাকে পড়লেন অভিনেত্রী শুভশ্রী। নিজের শহরে ডেকে হেঁকেও কারও সাড়া মিলল না। সাহায্যের জন্য কেউ এগিয়েও এলেন না। এমনকী পাত্তা দিল না পুলিশ ভ্যানও। নীরব ১০০। সব মিলিয়ে চূড়ান্ত হেনস্তার শিকার হলেন অভিনেত্রী।

ঠিক কী ঘটেছিল?
জানা যাচ্ছে, রবিবার রাতে গড়িয়াহাট থেকে ফেরার পথে রাস্তায় শুভশ্রীর গাড়িটি বিকল হয়ে পড়ে। তাঁর সঙ্গে ছিলেন অপর এক অভিনেত্রী কোহিমা—সহ আরও তিনজন। ‘পরমা’ উড়ালপুলের কাছে এসে গাড়িটি বিকল হয়ে পড়ে। প্রত্যাশামাফিক প্রথমে স্থানীয়দের সাহায্যের জন্য এদিক ওদিক খোঁজাখুঁজি করেন অভিনেত্রী। কিন্তু কেউ সহ-নাগরিকের সমস্যায় দৃকপাত পর্যন্ত করেননি। বাধ্য হয়েই পুলিশ ও প্রশাসনের সাহায্য নিতে হয়। কিন্তু সেখানেও বিপত্তি। অভিনেত্রীর অভিযোগ, তাঁদের ঠিক সামনে দিয়ে একটি পুলিশের গাড়ি চলে গেলেও কোনওরকম সাহায্য করা হয়নি। কেউ নেমে এগিয়ে আসেননি। এরপর রীতিমতো নিরূপায় হয়ে ১০০ ডায়াল করেন অভিনেত্রী। যে কোনও স্থানে পুলিশে সাহায্য পেতে এই তিনটি সংখ্যাই ভরসা। কিন্তু কাজের সময় সেখানেও কোনও সুরাহা মিলল না। অভিনেত্রী জানাচ্ছেন, নম্বর ডায়াল হলেও কেউ ফোন ধরেননি। ফলে রাতবিরেতে ঘোর বিপাকে পড়েন তিনি ও তাঁর সহযাত্রীরা। প্রায় ঘণ্টাখানেক ধরে প্রশাসন কিংবা স্থানীয়দের তরফে কোনও সাহায্য না পেয়ে নিজের শহরেই চূড়ান্ত হেনস্তার শিকার হন তাঁরা।

সমস্যার কথা তুলে ধরে ‘ফেসবুক’-এ লাইভ করেন অভিনেত্রী। ১০০ ডায়ালেও কোনও সুরাহা না মেলায় এরপর একপ্রকার বাধ্য হয়ে ডিসি ট্রাফিককে মেল পাঠান শুভশ্রী। তিনি অভিযোগ পেয়ে প্রগতি ময়দান থানায় জানান। সেই সময় ডিউটি অফিসার অন্য কাজে থাকায় বাইক পেট্রোলিং-এ থাকা দু’জন পুলিশকর্মী ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁদের উদ্ধার করেন। গাড়িটি ক্রেন দিয়ে টেনে নিয়ে গিয়ে অভিনেত্রীর বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়।

কলকাতা বরাবরই মানবিক শহর বলে পরিচিত। দিল্লি বা অন্যান্য শহরকে এই মানবিক গুণেই টেক্কা দেয় তিলোত্তমা। সেখানে এক সহনাগরিক বিপদে পড়তেও কেন কেউ এগিয়ে এলেন না, সে প্রশ্ন খচখচ করছে অনেকের মনেই। তবে কি বদলে যাওয়া শহররেই দৃষ্টান্ত তুলে ধরছে এই ঘটনা। তার উপর শুভশ্রী অতি পরিচিত মুখ। তিনিও যদি কারও সাহায্য না পান, অন্য কারওর পক্ষে তা কল্পনা করাও বৃথা। এদিকে ১০০ ডায়ালেও সাহায্য না মেলায় আরও প্রশ্ন জাগছে। রাতে কোনও নাগরিক বিপদে পড়লে কোন পথে পুলিশের দ্বারস্থ হবেন, সে চিন্তা থেকেই যাচ্ছে। সেলিব্রিটি হওয়ায় শুভশ্রী পুলিশের উপরমহলে সহজেই মেল করতে পেরেছেন। কিন্তু আমনাগরিকের পক্ষে তা সম্ভব নয়। ফলে ১০০ ডায়াল নীরব থাকা বেশ গুরুতর অভিযোগও বটে। আপাতত সমস্ত অভিযোগ খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Be the first to comment on "রাতবিরেতে ঘোর বিপাকে শুভশ্রী, মিলল না পুলিশের সাহায্যও"

Leave a Reply