মোবাইল টাওয়ার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর

বাংলাদেশের মোবাইল অপারেটরগুলোর টাওয়ার অনিরাপদ এবং জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। সরকারি এক প্রতিবেদনে এমন কথাই বলা হয়েছে। প্রতিবেদনে মোবাইল টাওয়ার থেকে অতিরিক্ত বিকিরণ কমিয়ে আনার বিষয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

২০১৩ সালে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় গঠিত একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি এই প্রতিবেদন প্রস্তুত করেছে। তারা ঢাকা শহরের মধ্যে কয়েকটি টাওয়ারের বিকিরণ পরীক্ষা করে এই পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন।

এছাড়া স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিটিআরসি কী পদক্ষেপ নিয়েছে সেটিও এর মধ্যে আদালতকে জানাতে বলা হয়েছে।

বুধবার ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী জিনাত হক প্রতিবেদনটি হাইকোর্টে দাখিল করেন।

বিচারপতি সৈয়দ রিফাত আহমেদ এবং বিচারপতি মো. সালিম সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই বিষয়ে পরবর্তী আদেশের জন্য আগামী ২৯ মার্চ দিন ধার্য করেছেন।

মোবাইল ফোনের টাওয়ারের তেজস্ক্রিয় বিকিরণ নিয়ে ২০১২ সালের অক্টোবরে হাইকোর্টে রিট করে পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস এন্ড পিস ফর বাংলাদেশ। পরে আরেক সম্পূরক আবেদনে স্বাস্থ্যের ক্ষতির বিষয়টি বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার মাধ্যমে নির্ণয়ে নির্দেশনা চাওয়া হয়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট জনস্বাস্থ্যের ওপর দেশের মোবাইল ফোন টাওয়ারগুলোর কোনো প্রভাব আছে কি না তা যাচাই করতে সরকারকে নির্দেশ দেয় এবং এ বিষয়ে দুটি প্রতিবেদন দিতে বলে।

একই সঙ্গে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যানকে এই বিকিরণ পরীক্ষা এবং বিভিন্ন মোবাইল অপারেটরের কয়েকটি টাওয়ার পরিদর্শন করে চার সপ্তাহের মধ্যে একটি প্রতিবেদন দিতে বলা হয়।

পাশাপাশি স্বাস্থ্য ও পরিবেশের ওপর বিকিরণের প্রভাবের বিষয়টি যাচাই করতে এক সপ্তাহের মধ্যে সাত সদস্যের বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করতে স্বাস্থ্য সচিবের প্রতিবেদন নির্দেশ দেয়া আদালত। তিন মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়।

Source:bonikbarta

Be the first to comment on "মোবাইল টাওয়ার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর"

Leave a Reply