মাদাম তুসোর মিউজিয়ামে স্থান হলো ‘বাহুবলীর’!

এখনও সপ্তাহ শেষ হয়নি। আর তার আগেই সাফল্যের শিখর ছুঁয়েছে ‘বাহুবলী ২: দ্য কনক্লুশন। ‘ ইতিমধ্যে বক্স অফিসে ৪৫০ কোটির টাকারও বেশি ব্যবসা করে ফেলেছে ছবিটি। রিল লাইফে দুর্দান্ত সাফল্যের পুরস্কার রিয়েল লাইফে পেলেন অভিনেতা প্রভাস। যিনি এখন বাহুবলী নামেই বেশি পরিচিত। প্রথম দক্ষিণী অভিনেতা হিসেবে এবার মাদাম তুসো মিউজিয়ামে স্থাপিত হলো তার মুর্তি।

ব্যাংককের জাদুঘরে ইতিমধ্যেই প্রভাবের মোমের মূর্তির উদ্বোধন করা হয়েছে। এ বিষয়ে কিংবদন্তি অভিনেতা রজনীকান্ত এবং কমল হাসানকেও পিছনে ফেলে দিলেন তিনি। প্রথম দক্ষিণী অভিনেতা হিসেবে এই সম্মান পেলেন প্রভাস। ভারতীয় চলচ্চিত্র জগৎকে এক অন্য মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছেন এই তারকা। ‘সুলতান’, ‘দঙ্গল’ এর মতো সুপারহিট হিন্দি ছবিগুলিকেও মাত দিয়েছে বাহুবলী। ছবির কাহিনি থেকে গ্রাফিক্স, এডিটিং সবেতেই বিশ্লেষকদের নজর কেড়েছে এসএস রাজামৌলির এই বিগ বাজেটের ছবি। আর সেই কারণেই এই বিশেষ সম্মান দেওয়া হল প্রভাসকে।

ব্যাংককের জাদুঘরে শোভা পাচ্ছে মহাত্মা গান্ধী এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মোমের মূর্তি। এছাড়াও লন্ডনের মাদাম তুসোর মিউজিয়ামে জায়গা করে নিয়েছেন শাহরুখ খান, সলমান খান, অমিতাভ বচ্চন, ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের মতো হিন্দি সিনেমা জগতের তারকারা। সিনেপ্রেমীদের মনে প্রশ্ন জাগত, এত সাফল্য আর খ্যাতির পরও কেন দক্ষিণী সুপারস্টাররা জাদুঘরে জায়গা করে নিতে পারেননি কেন? তাদের প্রতীক্ষার অবসান ঘটেছে। এবার সেখানে প্রভাসের মোমের মূর্তি উজ্জ্বল হয়ে রয়েছে।

গত বছরই মূর্তির জন্য প্রভাসের মুখের মাপ নেওয়া হয়েছিল। তখন অভিনেতা বলেছিলেন, “মাদাম তুসো আমায় বেছে নেওয়ায় আমি উচ্ছ্বসিত। আমার অগণিত ভক্তদের জন্যই এটা সম্ভব হয়েছে। তাদের ভালবাসা আর সমর্থনের জন্য আমি কৃতজ্ঞ। বাহুবলীর মতো বড় ভেনচারের সঙ্গে আমায় যুক্ত করায় গুরু রাজামৌলীর কাছেও আমি কৃতজ্ঞ।

Source :kalerkontho

Be the first to comment on "মাদাম তুসোর মিউজিয়ামে স্থান হলো ‘বাহুবলীর’!"

Leave a Reply