ভাঙা আইফোনটির দাম কোটি টাকা!

স্ক্রিন ভেঙে যাওয়া ৬ বছরের পুরনো আইফোনটির মডেল ফোর এস। পুরনো চশমার মতো ঝাপসা ডিসপ্লে। মোবাইলের পিছন দিকটাও স্ক্র্যাচে ভরা। আর এটির দামই নাকি এক কোটি টাকা! হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন। অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট ইবে-তে এই মোবাইল পাওয়া যাচ্ছে ১,৪৯,৯৯৯ ডলারে। আধ খাওয়া আপেলের ছাপ থাকার জন্যই কি এত দাম? নাকি অন্য কোন রহস্য রয়েছে!

https://www.bdnow24.com/category/বিজ্ঞান-ও-প্রযুক্তি/
আইফোন ফোর এস মডেলের ছবি পোস্ট করে বিক্রেতা জানিয়েছেন, সীমিত সংখ্যায় বের হওয়া স্টিভ জোবস সুপার রেয়ার আইফোনগুলির মধ্যে একটি তার এই ফোন। কিন্তু কী এমন রয়েছে এই ফোনটির মধ্যে?

বিক্রেতার দাবি, অ্যাপলের আসল লোগোর বদলে স্টিভ জবসের মুখ বসিয়ে যে ৫৬টি বিশেষ মোবাইল বার করা হয়েছিল তারই একটা বিক্রি করা হচ্ছে এই ওয়েবসাইটে। রীতিমতো ভাইরাল হয়ে ওঠে তার এই পোস্ট। অ্যাপলের সর্বশেষ সংস্করণ আইফোন সেভেন এসের কয়েক গুণ দাম এই ফোনের। কিন্তু এই মডেলটি আদৌ কি স্টিভ জোবস সুপার রেয়ার আইফোনগুলির মধ্যে একটি?

স্টিভ জবসের মৃত্যুর পর সীমিত সংখ্যার আইফোন বাজারে নিয়ে এসেছিল গোল্ডজিনি নামে এক সংস্থা। ওই মডেলগুলির বিশেষত্ব ছিল অ্যাপলের আধ খাওয়া লোগোতে জোবসের মুখ। এমন অভিনব লোগোর ডিজাইন করেছিলেন জোনাথন মাক নামে হংকংয়ের এক ছাত্র। রাতারাতি ভাইরাল হয়ে ওঠে সেই লোগো। স্টিভ জবসকে সম্মান জানাতে গোল্ডজিনি সংস্থা ৫৬টি স্পেশ্যাল মডেল বাজারে নিয়ে আসে। প্রত্যেকটি মডেল সোনালি রঙের। মোবাইলের পিছনে খোদাই করা স্টিভ জবসের নাম এবং তারিখ সহ অ্যাপলের নতুন লোগো।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, গোল্ডজিনির প্রত্যেকটি আইফোনের মডেল ছিল সোনালি রঙের। কিন্তু ইবেতে যে মডেলটির ছবি পোস্ট করা হয়েছে তা কালো রঙের এবং তার ব্যাক কভার স্বচ্ছ। বিশেষজ্ঞদের অভিযোগ, ওই ব্যক্তি ইবেতে এই বিজ্ঞাপন দিয়ে গ্রাহকদের বিভ্রান্ত করছে। সূত্র: আনন্দবাজার।

Be the first to comment on "ভাঙা আইফোনটির দাম কোটি টাকা!"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*