বৈশ্বিক সংকট নিরসনে আবারো জি২০ সম্মেলন 

শুরু হতে যাচ্ছে শিল্পোন্নত ও অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ বিশ্বের শীর্ষ দেশগুলোর সম্মেলন জি-২০।  জার্মান চ্যান্সেলর এ্যাঙ্গেলা মার্কেল হামবার্গের ডাউনটাউনকে এবারকার সম্মেলনের ভেন্যু হিসাবে ঠিক করেছেন।বৈশ্বিক অর্থনৈতিক নীতিমালা পরিচ্ছন্ন করাই এবারকার সম্মেলনের লক্ষ্য। সম্মেলন শুরুর আগে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর নেতাদের প্রতি আইএমএফ আহবান জানিয়েছে যেনো বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে বানিজ্য ও অর্থনীতি খাতে যেসকল বৈপরিত্য ও মতানৈক্য রয়েছে তা তারা দূর করার মতো একটি নীতিমালা প্রনয়ণ করার চেষ্টা করেন।আইএমএফ এক বিবৃতিতে জানান, ধনী ও শিল্পোন্নত দেশের নেতাদের এই সম্মেলনে যদি অদূরদর্শী বা অষ্পষ্ট কোনো সিদ্ধান্ত হয় তা বিশ্বের সকল দেশগুলোর জন্য ক্ষতির কারন হতে পারে। বৈশ্বিক বানিজ্যে মতানৈক্য যতদূর সম্ভব দূর করতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জি-২০ সম্মেলনের উদ্দেশ্যে বুধবারই রওনা দিয়েছেন। তবে সম্মেলনের আগেই তিনি কয়েকটি ইউরোপীয়ান দেশ সফর করেছেন। শুরু করেছেন পোল্যান্ড সফর দিয়ে।তবে জি-২০ সম্মেলনের আয়োজক দেশ জার্মানীর চ্যান্সেলর এ্যাঙ্গেলা মার্কেলের সঙ্গে জলবায়ু বানিজ্যসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের যে মতানৈক্য রয়েছে তা নিয়ে অনেকে শংশয় প্রকাশ করছেন। তবে কাউন্টার টেরোরিজম বা সন্ত্রাস প্রতিরোধ এবং চীন ইস্যুতে ট্রাম্প এ্যাঙ্গেলা ঐকমত্যে আসতে পারেন বলে অনেকে ধারণা করেন। এ্যাঙ্গেলা মার্কেল জানান, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মতের আমিল থাকলেও বিভিন্ন বিষয়ে সমঝোতা প্রতিষ্ঠার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জানান, তিনি স্টিল আমদানীতে শুল্ক কমানো এবং কোটা বসানোর চিন্তা করছেন। এটি যুক্তরাষ্ট্রের শিল্প খাতের জন্য মারাত্মক একটি হুমকী হতে পারে। তার এ্যামেরিকা ফার্ষ্ট নীতিমালারও পরিপন্থী। এসব কথায় যুক্তরাষ্ট্রেরর জি-২০ অংশীদারেরাও শংকিত।তবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের জি-২০ সম্মেলনে যোগদানের বাড়তি পাওনা ইউরোপিয়ন দেশগুলোর বেশ কয়েকটি রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে বৈঠক। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন হচ্ছে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গেকার বৈঠক। শুক্রবার বৈঠকটি হওয়ার কথা।

ট্রাম্প পুতিন আলোচনার ফলাফল যাই হোকনা কেন, জি-২০ সম্মেলনে বৈশ্বিক সংকট নিরসনে জলবায়ু, সন্ত্রাস, বানিজ্যসহ নানা বিষয় সুস্পষ্ট নীতিমালা গ্রহণ করা হবে।

Be the first to comment on "বৈশ্বিক সংকট নিরসনে আবারো জি২০ সম্মেলন "

Leave a Reply