বৃদ্ধি পাচ্ছে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের ব্যয় 

​বাংলাদেশকে ডিজিটালাইজেশন বা আধুনিকায়নের বাঁধার মধ্যে আমাদের বিদ্যুৎ সমস্যা অন্যতম ।  এখন পর্যন্ত শতভাগ বিদ্যুৎ সরবরাহ সবার জন্য সুনিশ্চিত করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি।  


বর্তমান সরকার এই সমস্যা নিরসনে বহু পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। সেই পদক্ষেপ গুলোর মধ্যে সবচেয়ে ব্যয় বহুল পদক্ষেপের তালিকায় প্রথম স্থান দখল করে আছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প। 

রাশিয়ার সঙ্গে সই হওয়া সাধারণ চুক্তি (জেনারেল কন্ট্রাক্ট) অনুযায়ী রূপপুর প্রকল্পের মোট ব্যয় ১ হাজার ২৬৫ কোটি মার্কিন ডলার। প্রতি ডলার ৮০ টাকা হিসাবে ধরা হলেও এতে টাকার অঙ্ক দাঁড়ায় ১ লাখ ১ হাজার ২০০ কোটি। এর সঙ্গে প্রকল্পের সমীক্ষার জন্য ব্যয় হওয়া ৫৫ কোটি ডলার যোগ করলে মোট ব্যয় দাঁড়ায় ১ হাজার ৩০২ কোটি ডলার, যা টাকার অঙ্কে হয় ১ লাখ ৫ হাজার ৬০০ কোটি।

তবে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে (একনেক) উঠছে। একনেকের বিবেচনার জন্য প্রকল্পের যে সারসংক্ষেপ তৈরি করা হয়েছে, তাতে মোট ব্যয় উল্লেখ করা হয়েছে ১ লাখ ১৩ হাজার ৯৩ কোটি টাকা। এর আগে প্রকল্পের ব্যয়ের  চেয়ে অনেক বেশি।

তবে কি আসলেই বৃদ্ধি পাচ্ছে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের ব্যয়? 

যদি বৃদ্ধি পেয়েই থাকে তবে কি কি কারণে বৃদ্ধি পাচ্ছে সেই ব্যয়? এই ব্যাপারে সঠিক কারণ এখন পর্যন্ত বের করা সম্ভব হয়নি।  

তবে কেউ কেউ মনে করছেন প্রকল্প বাস্তবায়নকালে সম্ভাব্য মুদ্রাস্ফীতি, নির্মাণসামগ্রীর মূল্যবৃদ্ধিসহ সব ব্যয়ের হিসাব যুক্ত হবার কারণে ব্যয় বৃদ্ধি পেয়ে থাকতে পারে। 

Be the first to comment on "বৃদ্ধি পাচ্ছে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের ব্যয় "

Leave a comment

Your email address will not be published.


*