বিশ্বের সবচেয়ে স্থুল নারী হওয়াই যার শখ!


মানুষ অনেক সৌখিন প্রকৃতির। সৌখিনতা থেকেই জন্ম হয়েছে শখ এবং স্বপ্নের। মানুষের নানা রকম স্বপ্ন থাকে। তাই বলে স্থুল হওয়া কারো শখ হতে পারে শুনেছেন কী? তাও আবার যেন তেন স্থুল নয়, তিনি হতে চান বিশ্বের সব থেকে স্থুল এবং গড়তে চান বিশ্ব রেকর্ড। নাম লেখাতে চান গিনেস বুকে।
মেয়েটির নাম মনিকা রিলে। মনিকা বিশ্বের সব থেকে স্থুল মানুষদের তালিকার শীর্ষে থাকতে চান। টেক্সাসের এই ২৭ বছর বয়সী নারী নিজের ওজন কমানোর পরিবর্তে প্রতিদিন ওজন বাড়ানোর লক্ষ্য নিয়ে দিন শুরু করেন।
মনিকা একটি ওয়েবসাইটের সুপার সাইজড মোটা এবং সুন্দরী মডেল। তিনি তার ওজন বানাতে চান ৪৫৩ কেজি। তিনি বর্তমানে প্রতিদিন প্রায় ৮০০০ ক্যালরি খাবার গ্রহণ করেন।
আর মনিকার এই স্বপ্ন পূরণে তার সঙ্গী হচ্ছে তার প্রেমিক সিড রিলে। সিড সারাদিন ধরে তার প্রেমিকা মনিকার জন্য রান্না করেন। তিনি চেষ্টা করেন যাতে তার প্রেমিকার ৯১ ইঞ্চি পেট খাবারে ভরে দিতে পারেন। এ ছাড়া তিনি তার প্রেমিকাকে খাওয়ানোর জন্য একটি টিউবও ব্যবহার করেন।
এ পর্যন্ত পৃথিবীর সব থেকে মোটা লোক হিসেবে গিনেস বুকে নাম লিখিয়েছেন আমেরিকার জন ব্রোয়ার মিনোক। মাত্র ২২ বছর বয়সে তার ওজন ছিল ১৭৮ কেজি। কিন্তু ২৫ বছর বয়সে তা দাঁড়ায় ৩১৭ কেজিতে। ১৯৭৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে তার ওজন ছিল ৪৪২ কেজি। পরে তাকে চিকিৎসার আওতায় আনা হয়। যখন তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয় তখন তার ওজন ছিল ৬৩৫ কেজি এবং হার্ট প্রায় অচল হবার পথে। তিনি অনেক দিন চিকিৎসারত ছিলেন। ১৯৮৩ সালে মিনোক মারা যান যখন তার ওজন ছিল ৩৬২ কেজি।
দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন সৌদি আরবের খালিদ বিন মহসিন শারি। তার জন্ম ১৯৯১ সালে। তার ওজন ৬১০ কেজি এবং তিনি এখন বেঁচে আছেন। তবে ২০১৩ সালের আগস্ট মাসে সৌদি সরকার তাকে ওজন কমানোর জন্য হাসপাতালে ভর্তির আদেশ দেন। ২০১৩ সালের নভেম্বর মাসে খালিদ প্রায় ১৫০ কাজি ওজন কমাতে সক্ষম হোন।
সারির তিন নম্বর স্থানে আছেন মাক্সিকোর ম্যানুয়েল ইউরিব। তার জন্ম ১৯৬৫ সালে। তার রেকর্ডকৃত ওজন ছিল ৫৯৭ কেজি। ২০১৪ সালে তিনি মারা যান এবং মারা যাওয়ার সময় তার ওজন ছিল ৩৯৪ কেজি।  সুত্র :সিলেটভিউ২৪.কম

Be the first to comment on "বিশ্বের সবচেয়ে স্থুল নারী হওয়াই যার শখ!"

Leave a Reply