বর্ষাকালে পায়ের যত্ন নেওয়ার উপায় 

বাইরে থেকে এসেই বাইরে থেকে এসে জীবাণুনাশক দিয়ে পা ধুয়ে ফেলুন। তবে গরম পানি দিয়ে পরিষ্কার করলে ভালো ফল পাওয়া যায়। তোয়ালে দিয়ে পা মুছে ফেলুন। এরপর ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম বা লোশন দিয়ে ম্যাসেজ করুন।

সপ্তাহে অন্তত একবার গরম পানিতে শ্যাম্পু দিয়ে পা ২০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। পায়ে জমে থাকা ময়লা পরিস্কার করে মুলতানি মাটি ও মধুর প্যাক লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে নিন।

ফ্যাশন সচেতন অনেকেই আজকাল নখ রাখেন। তবে বর্ষায় নখ ছোট রাখাই ভালো। আর বড় নখ রাখলে তা ব্রাশ দিয়ে পরিস্কার করতে হয়। জুতা অবশ্যই পরিষ্কার রাখুন। তবে পরবর্তীতে পায়ে পরার আগে জুতা পর্যাপ্ত বাতাসে শুকিয়ে নিন।
যারা অফিস করেন তারা একজোড়া এক্সট্রা জুতো ও মোজা রাখার চেষ্টা করুন। যাতে একজোড়া ভিজে গেলেও কোনো সমস্যা না হয়। যাদের খুব তাড়াতাড়ি পায়ে ইনফেকশন দেখা দেয় তারা মোজা বা জুতো পরার আগে ফাংগাস রোধক পাউডার দিয়ে নিতে পারেন।

বৃষ্টিতে কাদা-পানিতে কম হাঁটাচলা করাই ভালো। আর কাদা লেগে গেলেও তা দ্রুত ধুয়ে ফেলুন। যদি কোনো রকম জীবাণু-সংক্রমণ হয়, তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Be the first to comment on "বর্ষাকালে পায়ের যত্ন নেওয়ার উপায় "

Leave a Reply