প্রাণিজগত বিলুপ্তির আশংকা!


শুধু কালো গণ্ডার বা রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার নয়, প্রাণিজগতের প্রত্যেক পাঁচটি প্রজাতির মধ্যে একটি প্রজাতি এখন বিলুপ্তপ্রায়। যার ফলে এই শতাব্দীর শেষেই অর্ধেক প্রাণিজগত বিলুপ্ত হয়ে যাবে। এমনই বিস্ফোরক তথ্য জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।  
চলতি সপ্তাহেই ভ্যাটিকান সিটিতে একটি সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন বিশ্বের প্রথম শ্রেনিড় জীববিজ্ঞানীরা। উদ্দেশ্য প্রাণীজগতকে এই বিলুপ্তির হাত থেকে বাঁচানো। সেখানেই একথা নিশ্চিত করেছেন তারা।
জীবজন্তুদের মধ্যে সবথেকে বিপন্ন এখন রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার এবং কালো গণ্ডার। গোটা বিশ্বে কালো গণ্ডারের সংখ্যা মাত্র পাঁচ হাজার। কারণ চোরাশিকারীদের লক্ষ্যই থাকে গন্ডারের শিং। যার ওজন প্রায় ৫১ কেজি। এর দামও অনেক বেশি হয়। এছাড়া গণ্ডার এবং বাঘেদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গও চীনের মেডিসিন মার্কেটে বিক্রি করা হয় চড়া দামে।  
তবে বিজ্ঞানীরা জানালেন, এমনও কিছু কিছু উদ্ভিদ বা প্রাণীও রয়েছে, যারা কিনা পৃথিবীর জীবমণ্ডলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। কিন্তু অনেকেই তাদের নাম জানে না। এরা মূলত বাতাস থেকে কার্বনের উপাদানগুলিকে শুষে নেয়, মাটির উর্বরতা বাড়িয়ে দেয়। তবে এরাও ধীরে ধীরে বিলুপ্তির পথে।
ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির জীববিজ্ঞানী পল এহর্লিচ জানালেন, ‘বিশ্বের উন্নত দেশগুলি যথেচ্ছভাবে প্রাকৃতিক সম্পদের ব্যবহার শুরু করেছে। ফলে বাস্তুতন্ত্রের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। সমুদ্র থেকে মাছ তুলে নেওয়া হচ্ছে, প্রবাল দ্বীপগুলোকে ধ্বংস করা হচ্ছে এবং বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইড ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। আর সে কারণেই ধীরে ধীরে বিলুপ্তির দিকে এগোচ্ছি আমরা।’

Be the first to comment on "প্রাণিজগত বিলুপ্তির আশংকা!"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*