পর্যটন খাতের অবকাঠামোগত উন্নয়ন এখনও সম্পন্ন হয়নি 

​আকারে ছোট দেশ হলেও আমাদের কাছে রয়েছে নানা ধরণের নজরকারা কিছু সম্পদ। বিশ্বের বৃহত্তম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার, বিশ্বের একমাত্র ম্যানগ্রোভ বনভূমি সুন্দর বন সহ আরও অনেক প্রাকৃতিক দৃশ্য।  এই প্রাকৃতিক দৃশ্য বিদেশি পর্যটকদের ব্যাপক ভাবে আকৃষ্ট করে।  তবে আমরা আমাদের এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে পর্যাপ্ত বৈদেশিক মুদ্রা আয় করতে সক্ষম হচ্ছি না।  


তার অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে আমাদের অবকাঠামোগত ভাবে আধুনিকায়নের অভাব।  

এতে দরকার বিপুল পরিমাণের বিনিয়োগ।  

 রাজধানীর একটি হোটেলে অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশ (এটিজেএফবি) কর্তৃক  আয়োজিত ‘বর্তমান অবস্থায় পর্যটন খাতের ইমেজ পুনরুদ্ধারে সংবাদকর্মীদের ভূমিকা’ শীর্ষক এক কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বেসামরিক বিমান এবং পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।  

তিনি বিগত ২ বছরে বাংলাদেশের ট্যুরিজম খাতের অগ্রগতি এবং চলমান সমস্যা নিয়ে কথা বলেন।  

তিনি বলেন যে,  অবকাঠামো উন্নয়নে আমরা হাঁটি হাঁটি পা করে এগোচ্ছি। পর্যাপ্ত ব্যবস্থা সরকারের পক্ষ থেকে গ্রহণ করা হবে ।  

এছাড়া অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের (বিটিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আখতারুজ্জামান খান কবির, পর্যটন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান অপরূপ চৌধুরী, ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (টোয়াব) সভাপতি তৌফিক উদ্দিন আহমেদ, এটিজেএফবি এর সাধারণ সম্পাদক ইশতিয়াক আহমেদ ও সহ-সভাপতি আলতাব হোসেন সহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন। 

Be the first to comment on "পর্যটন খাতের অবকাঠামোগত উন্নয়ন এখনও সম্পন্ন হয়নি "

Leave a Reply