পরীক্ষায় প্রক্সি, অত:পর হাজতে দুই পরীক্ষার্থী 

তন্ময় আহমেদ নয়ন,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ

লালমনিরহাটে অনুষ্ঠিত ডিগ্রি পাস সার্টিফিকেট কোর্স পরীক্ষায় ৮ হাজার টাকার বিনিময়ে অন্যের হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে মিলন চন্দ্র রায় নামে এক নকল পরীক্ষার্থীকে ভ্রাম্যমান আদালত ২০ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেছেন।

মঙ্গলবার বিকালে একই সঙ্গে মুল পরীক্ষার্থী মানিক চন্দ্র রায়কেও ২০ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেছেন একই ভ্রাম্যমান আদালত।

লালমনিরহাট মজিদা খাতুন সরকারি মহিলা কলেজ সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বিকালে টাকার বিনিময়ে পরীক্ষা দিতে আসে রংপুর কারমাইকেল কলেজের ইংরেজী বিষয়ের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্র মিলন চন্দ্র রায়। এ সময় তাকে লালমনিরহাট মজিদা খাতুন সরকারি মহিলা কলেজে অনুষ্ঠিত ডিগ্রি পাস সার্টিফিকেট কোর্সের ইংরেজী বিষয়ের পরীক্ষার হলরুম থেকে আটক করা হয়।

পরে তাকে দিয়ে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে কৌশলে মুল পরীক্ষার্থী লালমনিরহাট সরকারি কলেজের ডিগ্রি পাস সার্টিফিকেট কোর্সের শেষ বর্ষের ছাত্র মানিক চন্দ্র রায়কে ডেকে আনা হয়। মানিক চন্দ্র রায়ের বাড়ী লালমনিরহাট সদর উপজেলার পঞ্চগ্রাম ইউনিয়নের খোরাগাছ এলাকায় এবং মিলন চন্দ্র রায়ের বাড়ী রংপুর জেলার কাউনিয়া উপজেলার তালুক শাহবাজ এলাকায়।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এমএম আরাফাত হোসেনের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমান আদালতে দন্ডবিধির ১৮৬০ এর ১৮৮ ধারায় মানিক ও মিলন তাদের দোষ স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করায় তাদেরকে ২০ দিনের করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে জেলহাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন।

Be the first to comment on "পরীক্ষায় প্রক্সি, অত:পর হাজতে দুই পরীক্ষার্থী "

Leave a Reply