চীন ও হংকং এর ৪০টি প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ সম্ভবনা

চীন ও হংকং এর ৪০টি বড় কোম্পানির একটি প্রতিনিধিদল ঢাকায় আসছে বাংলাদেশের ছয়টি খাতে বিনিয়োগ করতে। এই প্রতিনিধিদলটিকে বাংলাদেশে বিনিয়োগ সম্ভাবনার বিষয়টি বোঝাতে পারলে বড় বিনিয়োগ পাওয়া যাবে বলে আশা করেন বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)।

দ্য হংকং ট্রেড ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিল চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সহায়তায় এ সফরের আয়োজন করেছে। প্রতিনিধিদলটি আগামী ২৪ থেকে ২৬ অক্টোবর ঢাকায় অবস্থান করবে। তবে এ সফরের আগেই ২১ আগস্ট তাদের একটি প্রতিনিধি বাংলাদেশে আসছে সরকারের বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে মূল দলের বৈঠক নিয়ে প্রস্তুতি সভা করতে।

এ বিষয়ে বিডার পরিচালক তৌহিদুর রহমান খান জানান, এ সফরে বড় বড় প্রতিষ্ঠান আসছে শুধুমাত্র বড় প্রকল্পে বিনিয়োগের চিন্তা করে। তারা তাদের বোঝাতে পারলে বড় অঙ্কের বিনিয়োগ আশা করা যেতে পারে।

এই সফরে প্রতিনিধিদলে যেসব প্রতিষ্ঠান থাকবে তাদের মধ্যে রয়েছে চায়না শ্যানদং ইন্টারন্যাশনাল ইকোনমিক অ্যান্ড টেকনিক্যাল কো-অপারেশন গ্রুপ, হেনান বাফাং কনস্ট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি, চায়না ইন্টারন্যাশনাল ওয়াটার অ্যান্ড ইলেকট্রিক করপোরেশন, চায়না রোড অ্যান্ড ব্রিজ করপোরেশন, চায়না এনার্জি ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন, চায়না জিয়াংঝি করপোরেশন ফর ইন্টারন্যাশনাল ইকোনমিক অ্যান্ড টেকনিক্যাল কো-অপারেশন, ঝেনজিয়াং ইন্টারন্যাশনাল ইকোনমিক অ্যান্ড টেকনিক্যাল কো-অপারেশন, চায়না সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন করপোরেশন, চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট করপোরেশন, চায়না স্টেট কনস্ট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন, চায়না জিও ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন, চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড, সাংহাই কনস্ট্রাকশন গ্রুপ, পাওয়ার চায়না ইন্টারন্যাশনাল গ্রুপ, বেইজিং আরবার কনস্ট্রাকশন গ্রুপ, ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড কমার্শিয়াল ব্যাংক অব চায়না প্রভৃতি কোম্পানি।

চীনা ও হংকংয়ের প্রতিষ্ঠানগুলোর বিনিয়োগের মূল আগ্রহ বাংলাদেশের মেগা অবকাঠামো প্রকল্প, নগরের পরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়ন, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও নবায়নযোগ্য শক্তি, সেচ ও পানি সরবরাহ, সমন্বিত বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তিভিত্তিক প্রকল্পে।

২০১৪ সালের পর হংকংয়ের কোনো প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে আসেনি। এবার যে দলটি আসছে, তারা ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বিনিয়োগ সম্ভাবনা খতিয়ে দেখতে গিয়েছিল। এখন তারা বাংলাদেশকে একটি বিনিয়োগের গন্তব্য হিসেবে দেখতে চায়।

Be the first to comment on "চীন ও হংকং এর ৪০টি প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ সম্ভবনা"

Leave a Reply