খুশকিকে চিরতরে বিদায় জানানোর কিছু সহজ উপায়

খুশকিকে চিরতরে বিদায় জানাতে বেছে নিতে পারেন নিচের উপায়গুলো-

খুশকি দূর করতে লেবুর রসের সঙ্গে নারকেলের তেল মাথার তালুতে লাগানো যেতে পারে। এক চা চামচ লেবুর রসের সঙ্গে ৫ চা চামচ নারকেলের তেল ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর মাথার তালুতে লাগিয়ে ৩০-৩৫ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এভাবে ব্যহারের কিছুদিন পর দেখবেন খুশকি দূর হয়ে গেছে।
মেথি বাটা, আমলকীর রস, ডিমের সাদা অংশ ও টকদই পানিতে পেস্ট করে মাথায় লাগিয়ে দিয়ে আধ ঘণ্টা পর্যন্ত রেখে দিন। এরপর চুল শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন তাতেও খুশকি চলে যাবে।

খুশকি দূর করতে দুর্বা ঘাস ও নিমপাতার জুড়ি নেই। দুর্বা ঘাস ও নিমপাতা বাটা, ভিনেগার ও শসার রস মিশিয়ে পেস্ট করে মাথার তালুতে লাগান। এরপর আধঘণ্টা পর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। খুশকি চলে যাবে।
কাঁচা আমলকী ছেঁচে রস করে নারকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে চুলায় গরম করুন। এরপর রোদে ২-৩ দিন শুকিয়ে বোতলে ভরে রেখে দিন। সপ্তাহে ২ দিন সেই তেল মাথার তালুতে ঘষুন। খুশকি চলে যাবে।

খুশকি দূর করতে আপনার হাতের নাগালে থাকা জবা ফুল, আমলকি ও জলপাই ব্যবহার করতে পারেন। জবা ফুল, আমলকী ও জলপাই একসঙ্গে বেটে পেস্ট করে চুলে লাগান। আধ ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন, খুশকি কমে যাবে।

আমলকী ও শিকাকাই গুঁড়ো, নারকেল তেলের সঙ্গে পেস্ট করে চুলে দিন। শুকিয়ে গেলে শ্যাম্পু করলে খুশকি চলে যাবে।
খুশকি দূর করতে পেঁয়াজের রসে বেশ উপকারী। পেয়াজ রস করে মাথার তালুতে লাগান। ২০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

লেবুর রস খুশকি দূর করে। এজন্য শ্যাম্পু করার পর এক মগ পানিতে লেবু মিশিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। আর এতে করে চুলে সুগন্ধ বের হবে।

Be the first to comment on "খুশকিকে চিরতরে বিদায় জানানোর কিছু সহজ উপায়"

Leave a Reply