কৃষি গবেষকদের অবসরের বয়স বৃদ্ধি প্রস্তাব 

​কৃষি প্রধান দেশ হিসাবে বাংলাদেশ এখনও সুপরিচিত।  বাংলাদেশ বর্তমানে ডিজিটাল দেশ হিসাবে গড়ে ওঠার প্রচেষ্টারত থাকলেও জনসংখ্যার সিংহভাগ অংশ এখনও প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে নির্ভর করছে কৃষির উপর।


তাই কৃষিতে নতুন উদ্ভাবন এবং তা বাজার জাত করণ খুবই জরুরি।সেই জন্য কৃষি কাজের সাথে সম্পৃক্ত গবেষকদের দরকার দীর্ঘ মেয়াদে কাজ করা।  

কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ মকবুল হোসেনের সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত এক সভায় 

কৃষি বিজ্ঞানীদের অবসরের বয়স সীমা বাড়ানোর বিষয়টি বিশেষভাবে বিবেচনার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি সুপারিশ করা হয়েছে। 

এছাড়াও ১৬তম বৈঠকের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি, গমের ব্লাস্ট রোগ মোকাবিলায় কৃষি মন্ত্রণালয় গৃহীত পদক্ষেপ, চলমান রবি মৌসুমের প্রধান প্রধান ফসলের (সবজিসহ) বীজের চাহিদার বিপরীতে উৎপাদন ও আমদানী সম্পর্কে আলোচনা করা হয়। 

এক জরিপের বরাদ দিয়ে বলা হয় যে,  দেশে সর্বমোট ২,৩১,২১৬ হেক্টর লবণাক্ত জমিতে আবাদ হয়। এর মধ্যে ধান ১ লাখ ৯৭ হাজার ৫১৮ হেক্টর এবং গম চাষ হয় ৮ হাজার ৬১৫ হেক্টর জমিতে। 

আয়োজিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুল মান্নান, মোঃ মামুনুর রশীদ কিরন, এ, কে, এম, রেজাউল করিম তানসেন, মোঃ নূরুল ইসলাম ওমর এবং এড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি। 

Be the first to comment on "কৃষি গবেষকদের অবসরের বয়স বৃদ্ধি প্রস্তাব "

Leave a Reply