এশিয়ার অর্থনৈতিক কেন্দ্রবিন্দু হিসাবে গড়ে তোলা হবে বাংলাদেশকে 

​এশিয়া মহাদেশে অবস্থিত দেশ সমূহের মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম একটি ছোট দেশ।  আমাদের অর্থনৈতিক অবস্থাও তেমন ভালো পর্যায়ে এখনও পৌঁছাতে সক্ষম হয়নি।  বর্তমান সরকার ব্যাপক ভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।  অতিদ্রুত অন্যান্য দেশকে পেছনে ফেলে বাংলাদেশ একটি উল্লেখযোগ্য পর্যায়ে পৌঁছাইতে পারবে বলে আশা করা হচ্ছে।  


রাজধানী ঢাকার হোটেল রেডিসনে আয়োজিত ২০৩০ সাল নাগাত বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অবস্থান সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে আশার বানী শোনালেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।   

তিনি বলেন যে,  সারাদেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হবে। যেখানে সেখানে শিল্প গড়ে উঠবে না। এতে বিদেশি বিনিয়োগ আরো বাড়বে।

এছাড়া বাংলাদেশকে উন্নত অর্থনীতির দেশ গড়ার জন্য সরকার সুদূরপ্রসারী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। আমরা এমডিজি অর্জনে যেমন সফলতা অর্জন করেছি তেমনি এসডিজি অর্জনেও সফলতা অর্জন করব। এমডিজি অর্জনে বাংলাদেশ বিশ্বে রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। আশা করি, এসডিজি অর্জনের আমরা রোল মডেলে পরিণত হব।

বর্তমান কার্যক্রম সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন যে,   ২০২১ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাবে। কেউ অন্ধকারে থাকবে না। দারিদ্র্যের সীমা আমরা কমিয়ে এনেছি, আরো কমানো হবে। ২০৪১ সালের মধ্যে মাথাপিছু আয় ১২ হাজার ৬০০ ডলারে উন্নীত হবে। 

 দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ সরকারের একার পক্ষে সফল করা সম্ভব নয়। দেশের স্বার্থে সবাই কে তিনি এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। 

Be the first to comment on "এশিয়ার অর্থনৈতিক কেন্দ্রবিন্দু হিসাবে গড়ে তোলা হবে বাংলাদেশকে "

Leave a Reply