এবার বড় পর্দায় দ্বৈত চরিত্রে দেবলীনা

বড় পর্দায় ফের একসঙ্গে অভিনয় করছেন তথাগত ও দেবলীনা মুখোপাধ্যায়। ছবির নাম সিন সিস্টার্স। এর আগে শঙ্করলাল ভট্টাচার্যর পরকীয়া ছবিতেও একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন তাঁরা। তবে এই প্রথমবার সিন সিস্টার্স ছবিতে দেবলীনাকে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করতে দেখবেন দর্শক। অস্ট্রেলিয়ান ঔপন্যাসিক গেরি হেমারের লেখা সিন সিস্টার্স ভিত্তি করেই লেখা হয়েছে এই ছবির চিত্রনাট্য। সেই কারণে পরিচালক শুভব্রত চট্টোপাধ্যায় নামও রেখেছেন উপন্যাসের নামেই। প্রসঙ্গত, পিনাকী ঘোষের পাশাপাশি সিন সিস্টার্স ছবিটি সহ-প্রযোজনাও করছেন গেরি হেমার। খবর, ছবির একটি চরিত্রে অভিনয়ও করতে পারেন তিনি।

গল্পের কেন্দ্রে রয়েছে এক গ্রাফিক নভেলিস্ট। দুর্জয় রায়। চরিত্রটিতে অভিনয় করছেন তথাগত। কাজ এবং প্রেমিকাকে নিয়ে সুখের জীবন দুর্জয়ের। প্রেমিকার সঙ্গে বাগদান পর্বও সারা। তথাগতর কথায়, আমার চরিত্রটা খানিকটা চেতন ভগত বা আধুনিক সময়ের জনপ্রিয় লেখকদের মতো। সব বিষয়ে খুঁতখুঁতে সে। উপন্যাসের গল্পের ডিটেলিং থেকে শুরু করে বইয়ের কভারের ছবি- সব দিকেই নজর তার। প্রেমিকার সঙ্গে প্রায় ১০ বছরের সম্পর্ক। বিয়েটা শুধু সময়ের অপেক্ষা। নতুন উপন্যাসের প্রয়োজনে পেন্টারের প্রয়োজন পড়ে দুর্জয়ের। সে জন্য সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দেয় সে। ইন্টারভিউয়ের পর দুই যমজ বোন পিউ এবং কুহু চাকরি পায়। এই দুটি চরিত্রেই অভিনয় করছেন দেবলীনা।

তিনি বলছিলেন, পর্দায় আমরা যে যমজ ভাই-বোনের চরিত্রগুলোকে দেখি, সেগুলোতে সাধারাণত দুজনকে একে অপরের সম্পূর্ণ বিপরীত দেখানো হয়। এখানে পিউ আর কুহুর চরিত্র দুটোকে সেভাবে দেখানো হয়নি। এই ব্যাপারটা খুব ভালো লেগেছিল আমার। তথাগতর কথায়, একসঙ্গে কাজ করতে করতে পিউ এবং কুহুর প্রতি দুর্জয়ের একটা ভালোলাগা জন্মাতে শুরু করে।
অন্যদিকে, পিউ এবং কুহু দুজনই দুর্জয়ের ডাই-হার্ড ফ্যান। কিন্তু হঠাৎ দুর্জয়ের বাগদত্তা খুন হয়ে যায়। এর পরই চিত্রনাট্য অন্য খাতে বইতে শুরু করে। খুনের দায় এসে পড়ে দুর্জয়ের ওপর। ছবিতে পুলিশ অফিসারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন গায়ক রূপঙ্কর। এর আগে তিনি একটি শর্ট ফিল্মে অভিনয় করেছিলেন। নাটকে তাঁর অভিনয়ের কথা অবশ্য সকলের জানা। বেশ কয়েকদিনের কাজ হয়ে গিয়েছে ছবির। মে মাসের শেষ থেকে ফের শুরু হবে ‘সিন সিস্টার্স’এর শুটিং।

সূত্রঃকালের কন্ঠ

Be the first to comment on "এবার বড় পর্দায় দ্বৈত চরিত্রে দেবলীনা"

Leave a Reply