ইউনুস খানের সেঞ্চুরির পরেও বিপদে পাকিস্তান 

​অস্ট্রেলিয়া সফরে পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ রান করলেন আজহার আলি। প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১১টি দেশে শতক করলেন ইউনুস খান। তবে অন্যদের ব্যর্থতায় রানের পাহাড় গড়া অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টে ফলোঅনের শঙ্কায় পাকিস্তান।

বৃষ্টির কারণে সিডনি টেস্টের তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনের খেলা হয়নি। পরের দুই সেশনের দারুণ বোলিংয়ে অতিথিদের বিপদে ফেলে অস্ট্রেলিয়া।

দিনশেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ২৭১ রান। ৩৪তম শতক পাওয়া ইউনুস ১৩৬ ও ইয়াসির শাহ ৫ রানে ব্যাট করছেন। ফলোঅন এড়াতে এখনও ৬৮ রান চাই মিসবাহ-উল-হকের দলের।

টেস্ট খেলুড়ে ১০ দেশেই শতকের কৃতিত্ব ছিল কেবল রাহুল দ্রাবিড়ের। অস্ট্রেলিয়ায় শতক করে তাকে স্পর্শ করলেন ইউনুস। তবে সংযুক্ত আরব আমিরাতেও তিন অঙ্ক ছোঁয়ায় সব মিলিয়ে ১১ দেশে টেস্ট শতক রয়েছে পাকিস্তানের এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের।

ইউনুসের ২৭৯ বলের ইনিংসটি গড়া ১৪টি চার ও একটি ছক্কায়। সিরিজে একটি অর্ধশতক ছাড়া বাকি তিন ইনিংসেই ব্যর্থ ছিলেন ইউনুস। গত টেস্টেই দুইবার (২১, ২৪) আউট হয়েছেন থিতু হয়ে, প্রথম টেস্টে একবার ফিরেছেন শূন্য রানে। দলের বিপদের সময় ঠিকই দাঁড়িয়ে গেলেন ১০ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করার অপেক্ষায় থাকা এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ২ উইকেটে ১২৬ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে পাকিস্তান। আগের দিনের ১২০ রানের জুটিকে ১৪৬ পর্যন্ত এগিয়ে নেওয়ার পর বিচ্ছিন্ন হন আজহার-ইউনুস। দুই জনের ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট হয়ে ফিরেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আজহার।

৭টি চারে ৭১ রান করার পথে অস্ট্রেলিয়ায় এক সিরিজে পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান হিসেবে সর্বোচ্চ রান করা মহসিন খানকে (৩৯০) ছাড়িয়ে যান আজহার (৩৯৫)।

পরের কোনো ব্যাটসম্যান সঙ্গ দিতে পারেননি ইউনুসকে। আগের চার ইনিংসে সব মিলিয়ে ২০ রান করা অধিনায়ক মিসবাহ এবার ফিরেন ১৮ রান করে। দুই অঙ্কেই যেতে পারেননি আসাদ শফিক, মোহাম্মদ আমির ও ওয়াহাব রিয়াজ।

দ্বিতীয় নতুন বলে সরফরাজ আহমেদকে বিদায় করেন মিচেল স্টার্ক। আমির ও ওয়াহাবকে নতুন বলেই ফেরান নাথান লায়ন। সব মিলিয়ে ৯৮ রানে তিন উইকেট এই অফ স্পিনারের।

তৃতীয় দিন অসুস্থতার জন্য মাঠ ছেড়ে হোটেলে ফিরে যান অস্ট্রেলিয়ার নিয়মিত উইকেটরক্ষক ম্যাথু ওয়েড। তার জায়গায় ৪৪তম ওভার থেকে উইকেটের পেছনে দাঁড়ান পিটার হ্যান্ডসকম। বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে খেললেও তিনিও একজন উইকেরক্ষক। স্বাগতিক দলের চিকৎসকের আশা চতুর্থ দিন সেরে উঠবেন ওয়েড।

পাকিস্তান ইনিংসের ৭৭তম ওভারে সরফরাজ আহমেদের জোরালো শট আঘাত হানে শর্ট লেগে ফিল্ডিং করা ম্যাট রেনশর হেলমেটে। আর দুই ওভার ফিল্ডিংয়ের পর মাথায় ব্যথা অনুভব করলে মাঠ ছাড়েন তিনি। এর আগে চলতি টেস্টের প্রথম দিন মোহাম্মদ আমিরের বাউন্সার আঘাত হেনেছিল এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের হেলমেটে।

তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস: ৫৩৮/৮ ইনিংস ঘোষণা।

পাকিস্তান ১ম ইনিংস: ৯৫ ওভারে ২৭১/৮ (আজহার ৭১, শারজিল ৪, বাবর ০, ইউনুস ১৩৬*, মিসবাহ ১৮, শফিক ৪, সরফরাজ ১৮, আমির ৪, ওয়াহাব ৮, ইয়াসির ৫*; স্টার্ক ১/৬৫, হেইজেলউড ২/৫৩, ও কিফে ১/৩৭, লায়ন ৩/৯৮, কার্টরাইট ০/১৫)।

Be the first to comment on "ইউনুস খানের সেঞ্চুরির পরেও বিপদে পাকিস্তান "

Leave a Reply