অ্যামাজনের সাথে প্রতারণা!

কিছু দিন আগে অ্যামাজনকে দিনের পর
দিন বোকা বানিয়ে সংবাদের শিরোনামে এসেছিলেন
ভারতের এক নারী। এবার অ্যামাজনকে বোকা বানিয়ে
সংবাদের শিরোনাম হয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের
ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যের এক দম্পতি।
ব্যবসা বাণিজ্য বিষয়ক সংবাদমাধ্যম বিজনেস ইনসাইডারের এক
প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইন্ডিয়ানার ওই দম্পতি অ্যামাজনকে
বোকা বানিয়ে অন্তত ১.২ মিলিয়ন ডলার সমমূল্যের
ইলেক্ট্রিক জিনিসপত্র হাতিয়ে নিয়েছে। এরিক ফিনান এং
লেহ ফিনান দম্পতির বিরুদ্ধে চলতি বছরের মে মাসে
প্রতারণার অভিযোগ আনা হয়।
অভিযোগে বলা হয়, এই দম্পতি ভুয়া পরিচয়ে অ্যামাজন
থেকে নানা ধরনের বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি যেমন-গো-
প্রো ক্যামেরা, এক্সবক্স গেম, স্যামসাং স্মার্টওয়াচ
কিনতো। পরবর্তীতে তারা দাবি করতো অ্যামাজন
থেকে পাঠানো পণ্যে সমস্যা রয়েছে। এভাবে তারা
টাকা ফেরত নিয়ে নিত তবে ওইসব পণ্য ফেরত দিত না।
এভাবে অ্যামাজনকে বোকা বানিয়ে ১.২ মিলিয়ন ডলার
হাতিয়ে নেয় এই দম্পতি।
এদিকে, ভূয়া পরিচয়ে পণ্য কেনায় তাদের খোঁজ
পাচ্ছিলো না অ্যামাজন। তবে পরবর্তীতে দেশটির
পোস্টাল সার্ভিসের সদস্যদের কাছে ধরা পরে এই
দম্পতি।
জানা যায়, তাদের বিরুদ্ধে আনা এ অভিযোগ প্রমাণিত হলে
তাদের আর্থিক জরিমানার পাশাপাশি অন্তত ২০ বছরের
কারাদণ্ড হতে পারে।
উল্লেখ্য, এর আগে ভারতে অ্যামাজনকে বোকা
বানিয়ে ৬৯ লাখ ৯১ হাজার ৯৪০ রুপি প্রতারণা করেছিলেন
দীপান্বিতা নামে এক ভারতীয় নারী। তিনি ভুয়া
অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে প্রায়ই মোবাইল, টিভি, এসএলআর
ক্যামেরার মতো দামি দামি জিনিস কিনতেন। কিন্তু ২৪ ঘণ্টা
যেতে না যেতেই অ্যামাজনের কাস্টমার রিটার্ন সিস্টেম
বা সি-রিটার্ন দিয়ে তা ফেরত পাঠাতেন। ফেরত পাঠানোর
সময় মূল্যবান জিনিসটি বের করে নিয়ে একই রকম
দেখতে নিন্মমানের একটি সামগ্রী ভরে দিতেন
প্যাকেটের মধ্যে।

Be the first to comment on "অ্যামাজনের সাথে প্রতারণা!"

Leave a Reply