অবশেষে থানায় এসে আত্নসম্পর্ন করলেন হাতকড়াসহ পলাতক আসামি

তন্ময় আহমেদ নয়ন, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ জেলার পাটগ্রাম উপজেলার পুলিশের হাতকড়াসহ পালিয়ে যাওয়া মাদক ব্যবসায়ি লিটন ওরফে ফুল মামুন অবশেষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে পাটগ্রাম থানা পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। বাউরা ইউনিয়ন আনসার-ভিডিপি সদস্য ও বাউরা ইউনিয়ন চেয়ারম্যনের সহযোগিতায় পাটগ্রাম থানা পুলিশ আজ লিটনের বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় থানা পুলিশ লিটনের স্ত্রী ও তার বোন মুন্নিকে আটক করলে লিটন থানা পুলিশের হাতে ধরা দেয়। বাউরা ইউপির ১ নং ওয়ার্ড সদস্য আসাদুল ইসলাম লিটনের আত্মসমর্পণের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন,আজ বিকেলের দিকে থানা পুলিশ লিটনের স্ত্রী ও তার বোনকে ধরলে লিটন থানা পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। পাটগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ আব্দুল হালিম লিটনের আত্মসমর্পণ বিষয়ে বলেন,পাটগ্রাম থানা পুলিশের সদস্যরা আজ লিটনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার স্ত্রী ও বোনকে আটক করে। এসময় লিটনও থানা পুলিশের হাতে ধরা দেয়। উল্লেখ্য, মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত মতিয়ার রহমান ওরফে গুলি মতিয়ারের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী লিটন গতকাল পুলিশের হাতে ধরা পড়ে।কিন্তু তার পরিবারের লোকজনের সহযোগিতায় সে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। এসময় থানা পুলিশ লিটনের মা ও বোনকে আটক করে থানায় নেয়। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ডাঙ্গা পাড়া এলাকার গুলি মতিয়ারের পরিবারটি গত একযুগ ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছে। বিভিন্ন সময় থানা পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে আবার ছাড়াও পেয়েছে। একবার বিডিআর (বিজিবি) এর ছোড়া গুলি তার ডান হাতের বাহুতে লাগে, পরে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে ভাল হয়। এরপর আবার শুরু করে মাদক ব্যবসা। স্থানীয় কিছু সুবিধাভোগী তার কাছ থেকে সুবিধা নিয়ে তাকে মাদক ব্যবসা করার সুযোগ দেয়। মতিয়ারের বাড়িতে বাউরা এলাকা ছাড়াও হাতীবান্ধা ও পাটগ্রামের যুবকরা নেশা করার জন্য নিয়মিত যাতায়ত করে। পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনিশংকর করে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মাদক ব্যবসায়ী লিটন নিজেই হাতকড়াসহ থানায় এসে আত্নসম্পর্ন করছে এবং আগামী কাল তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে।

Be the first to comment on "অবশেষে থানায় এসে আত্নসম্পর্ন করলেন হাতকড়াসহ পলাতক আসামি"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*